10th, December, 2022, 4:31 am

স্বাভাবিক খেলেই ফাইনালে ভারতকে হারানোর আশা

নিজেস্ব প্রতিনিধি : প্রথমবারের মতো আইসিসি আয়োজিত কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠল বাংলাদেশ। এখন পর্যন্ত যুব ক্রিকেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জয়টা এসেছে মাহমুদুল হাসানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির সুবাদে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষেও নিজেদের স্বাভাবিক খেলাই খেলবেন, এমন প্রত্যয় শোনা গেল তাঁর কণ্ঠে আজ যুব বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। পচেফস্ট্রুমে বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের পর মাহমুদুল হাসানের ম্যাচ জেতানো সেঞ্চুরি বাংলাদেশকে এনে দিয়েছে অনন্য এক স্বাদ। নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী স্বাভাবিক খেলা খেললে কেমন সুফল পাওয়া যায়, সেটাই যেন দেখিয়েছেন মাহমুদুল হাসানরা। ফাইনালের ভারত-পরীক্ষাতেও নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলার চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন সেমিতে সেঞ্চুরি করে রাতারাতি তারকা বনে যাওয়া এ তরুণ। মাহমুদুলের ১২৭ বলে ১০০ রানের স্মরণীয় ইনিংসটিই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সেমিফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশকে জিতিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই নিজের কাছেও এই ইনিংসটার মহিমা অন্যরকম, ‘এটা আমার জন্য বিশেষ একটি ইনিংস। কারণ বাংলাদেশ এই প্রথম ফাইনালে উঠল। বাংলাদেশ এর আগে সর্বোচ্চ সেমিফাইনাল পর্যন্ত যেতে পেরেছে। অধিকাংশ সময় এর আগেই নক আউটে বাদ পড়েছে। প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠায় এটা আমার জন্য বিশেষ এক ইনিংস।’ নিউজিল্যান্ডের ছুড়ে দেওয়া ২১২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামা বাংলাদেশের জয়ের জন্য বিশেষ কিছু দরকার ছিল না। দরকার ছিল ঠান্ডা মাথার ব্যাটিং। দুই ওপেনার দ্রুত বিদায় নিলেও তিনে নেমে ম্যাচটা নিজেদের দখলে নিয়ে এসেছেন মাহমুদুল। ব্যাটিং করার সময় মনে কী ভাবনা কাজ করছিল? সেটাও জানিয়েছেন মাহমুদুল, ‘আমরা একটু একটু করে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলাম। ১০ রান, ১০ রান-এভাবেই খেলার চেষ্টা করেছি। তৌহিদের সঙ্গে যে জুটি হলো, তখন মনে হলো ম্যাচটা আমাদের দিকে চলে এসেছে। আরেকটু বড় জুটি হলেই আমাদের পরের ব্যাটসম্যানদের কোনো ঝামেলায় পড়তে হবে না।’ জয় থেকে মাত্র ১১ রান দূরে থাকা অবস্থায় আউট হয়েছেন। কিন্তু ততক্ষণে ম্যাচ নিয়ে সব শঙ্কা আর উত্তেজনা শেষ। দায়িত্বটা তাই ভালোভাবেই মাহমুদুল পূর্ণ করেছেন বলা যায়। কিন্তু মাহমুদুল নিজে কি তাতে সন্তুষ্ট? ‘অবশ্যই খুশি না। দল চাচ্ছিল আমি অপরাজিত থাকি। শেষ করে এলে আরও ভালো হতো। কিন্তু বাজে একটা শট খেলে আউট হয়ে গেছি,’ নিজের ‘ব্যর্থতা’ স্বীকারে একদম অকপট মাহমুদুল! ফাইনালে প্রতিপক্ষ ভারত। দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলে দর্শকদের চোখ কপালে তুলে দিয়েছে তারা। প্রতিবেশী দেশকে ফাইনালে হারাতে পারবে তো বাংলাদেশ? ভারতের বিপক্ষে জাতীয় দল বা বয়সভিত্তিক দল, সব ক্ষেত্রেই ফাইনালে হারটাই নিয়তি হয়ে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের জন্য। এবার ব্যতিক্রম কিছু করার আশা শোনাচ্ছেন মাহমুদুল, ‘আমরা আমাদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলব। ফাইনাল বলেই বাড়তি চাপ নেব এমন না। ভালো কিছুই হবে।

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page

error: sorry please