28th, July, 2021, 1:48 pm

স্বস্তি আনবে মজাদার শরবত

ডেস্ক সংবাদ : গরমে নাভিশ্বাস উঠেছে সবার। করোনাকালে বাড়িতেই খুব সহজেই বানানো যায় নানা রকমের শরবতের সমাহার। তৃষ্ণা মেটাতে পানির পরই শরবত সব সময়ই জনপ্রিয়। সব সময় কিছু না কিছু ফল আপনার ঘরে তো আছেই। আর এ সময়ে যে ফলগুলো সহজলভ্য সেগুলো দিয়ে বানিয়ে নিন মজাদার সব শরবত।

তরমুজ:

গরমের ফলগুলোর মধ্যে তরমুজ অন্যতম। তীব্র এই গরমে রসে টইটুম্বুর এই ফলটি কেবল আমাদের প্রাণ জুড়াতেই সাহায্য করে না, এর রয়েছে বেশকিছু গুণ। পুষ্টিতে ভরপুর তরমুজ তাই রাখতে পারেন আপনার খাদ্য তালিকায়। চাইলে খুব সহজেই তরমুজ দিয়ে তৈরি করতে পারেন সুস্বাদু শরবত।

উপকরণ : তরমুজের টুকরো ২ কাপ, বরফ কুচি ২ কাপ, বিটলবণ অল্প, লেবুর রস সামান্য, পুদিনা পাতা কয়েকটি, চিনি পরিমাণমতো।

প্রণালি : প্রথমে তরমুজের খোসা ছাড়িয়ে বিচিগুলো ফেলে দিন। এবার ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন। এাবর একটি ব্লেন্ডারে টুকরো করা তরমুজ, বিট লবণ, লেবুর রস, কয়েকটি পুদিনার পাতা এবং চিনি দিয়ে ব্ল্যান্ড করে নিন। এখন এটি একটি ছাকনি দিয়ে ছেঁকে নিন। এবার বরফ কুচি দিয়ে গ্লাসে ঢেলে টেবিলে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

কাঁচা আমের শরবত:

কাঁচা আমে রয়েছে ভিটামিন ‘সি’, যা রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে শরীরের রোগ প্রতিরোধে ভিটামিন সি খুবই কার্যকর।

শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো ছাড়াও বিভিন্ন রোগের সংক্রমণ থেকে শরীরকে রক্ষা করে ভিটামিন সি। তাই এর ঘাটতি পূরণে খাদ্য তালিকায় কাঁচা আম রাখা সবচেয়ে সহজলভ্য।

কাঁচা আম বিভিন্ন উপায়ে খাওয়া গেলেও এর সঠিক পুষ্টিগুণ পেতে শরবত খাওয়ার বিকল্প নেই। গরমে এক গ্লাস কাঁচা আমের শরবত খেলে যেন মুহূর্তেই শরীরে স্বস্তি দেয়।

বিভিন্নভাবে কাঁচা আমের শরবত তৈরি করা যায়।

এর মধ্যে সবচেয়ে সহজ একটি উপায় হলো কাঁচা আম ও পুদিনা পাতা দিয়ে তৈরি শরবত। কারণ পুদিনা পাতা তাপ নিয়ন্ত্রণ করে শরীরকে ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে।

এর রস পিষে দু’তিন ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে পান করলে ক্লান্তিভাব দূর হয়। নিয়মিত পুদিনা পাতা খাওয়ার অভ্যাস করতে পারলে বুকে কফ জমতে পারে না। এছাড়া শরীরের ব্যথা কমাতেও পুদিনা পাতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

পোড়া আমের শরবত:

উপকরণ: কাঁচা আম ২টি, চিনি ১ কাপ, শর্ষেবাটা ১ চা-চামচ, টালা জিরাগুঁড়া আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ২টি, বিট লবণ আধা চা-চামচ বা পরিমাণ মতো ও ঠান্ডা পানি ৪ কাপ।

প্রণালি: কাঁচা আম খোসাসহ আগুনে পুড়িয়ে ঠান্ডা করে নিন। খোসা ছাড়িয়ে হাত দিয়ে চিপে আমের মণ্ড বের করে নিন।ব্লেন্ডারে সব উপকরণ ভালো ভাবে ব্লেন্ড করে নিন। গ্লাসে ঢেলে পরিবেশন করুন।

পাকা বেল:

উপকরণ: পাকা বেল ১টি, তরল দুধ ২ কাপ, ছানা আধা কাপ, বাদামগুঁড়া ২ টেবিল চামচ, মধু স্বাদমতো, পানি আধা কাপ।

প্রণালি: প্রথমে বেল ফাটিয়ে বেলের কাই বের করে নিন। সামান্য পানি দিয়ে মেখে নিন। চালুনিতে চেলে রস বের করে নিন (লক্ষ্য রাখবেন, বেলের বিচি যেন থেঁতলে না যায়)। এবার বাকি সব উপকরণ ব্লেন্ড করে মিশিয়ে গ্লাসে ঢেলে পরিবেশন করুন।

আনারস/কমলা

উপকরণ: আনারসের কুচি ৪ কাপ, কমলার টুকরা ২ কাপ, আদাকুচি ২ চা-চামচ, পুদিনাপাতা আধা কাপ, বিট লবণ সামান্য, চিনি স্বাদমতো ও পানি ৩ কাপ।

প্রণালি: পুদিনাপাতা ও চিনি বাদে বাকি সব উপকরণ ভালোভাবে ব্লেন্ড করে ছাঁকনিতে ছেঁকে নিন। এবার চিনি ও পুদিনাপাতা দিয়ে আরও একবার ব্লেন্ড করে নিন। গ্লাসে ঢেলে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

Please share this news ..
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page