10th, December, 2022, 12:11 pm

সনদ ফেলে দেয়ার প্রতিবাদে ছাত্রদলের মানববন্ধন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বাড়িওয়ালা কর্তৃক শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সনদ ও মালামাল ফেলে দেয়ার প্রতিবাদে ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা ও করোণা মহামারী কালীন সময়ে শিক্ষার্থীদের প্রতি সরকার ও সংশ্লিষ্ট সকলের মানবিক আচরণ নিশ্চিত করার দাবিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ মানববন্ধন করেছে । আজ  রবিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।এ মানববন্ধনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল  উপস্থিত ছিলেন । এই সময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের নেতৃবৃন্দ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলসহ,ঢাবির বিভিন্ন হল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।মানববন্ধনে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল  শিক্ষার্থীর প্রতি সর্বোচ্চ মানবিক আচরণ করতে বাড়ি ও হোস্টেল মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। কয়েকদিন আগে রাজধানীর কলাবাগানের ওয়েস্টার্ন স্ট্রিটের একটি বাড়ির নিচতলায় মেসে থাকা আট শিক্ষার্থীর তিনটি কক্ষের তালা ভেঙে তাদের শিক্ষাসনদ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নিবন্ধনপত্র, বই–খাতাসহ যাবতীয় মালামাল কক্ষের বাইরে ফেলে দেয় বাড়িওয়ালা। একইরকম ঘটনা ঘটে ধানমন্ডিতেও।শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অন্যায় আচরণের প্রতিবাদ জানিয়ে তারা বলেন, ‘সামান্য ভাড়ার জন্য বাড়ির মালিকের এই কাজ কোন ভাবেই মানবিকতার মধ্যে পড়ে না। করোনার এই দুঃসময়ে যেসব বাড়িওয়ালা পরিস্থিতি বিবেচনা না করে শুধু টাকার জন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যে অমানবিক আচরণ করছে তা কোনও ভাবেই কাম্য নয়।’ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, করোনাকালে সবার শিক্ষার্থীদের প্রতি আরও সহনীয় এবং মানবিক হওয়ার কথা ছিল। কিন্ত তা না করে অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে। এর সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুন না কেন, সবাইকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে ।“ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেন, করোনার সময় মেসে থাকা শিক্ষার্থীদের জীবন কঠিন অবস্থার মধ্যে পড়েছে। অনেকের বাবা-মায়ের আয় বন্ধ।তিনি বলেন, এ অবস্থায় মেস মালিকদের আচরণ গ্রহণযোগ্য নয়। এসময় শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ লাঘবে মেস ভাড়া মওকুফ করার দাবি জানান । মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সহ-সভাপতি আশরাফুল আলম ফকির লিংকন, হাফিজুর রহমান হাফিজ, মাজেদুল ইসলাম রুম্মন, কে এস এম মোসাব্বির সাফি, মোক্তাদির হোসেন তরু, সাজিদ হাসান বাবু, মিজানুর রহমান সজিব, সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, মহিন উদ্দিন রাজু, তানজিল হাসান, এবি এম মাহমুদ সর্দার, আরিফুর রহমান, আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের বাবু, মারুফ এলাহি রনি, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, সহ-সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন নিলয়, আক্তারুজ্জামান আকতার, জামিল হোসেন, আলাউদ্দিন খান, সুলতানা জেসমিন জুই, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, সদস্য সচিব আমন উল্লাহ আমান, যুগ্ম আহ্বায়ক আকতার হোসেন, জহির রায়হান আহমেদ, নাসির উদ্দিন,আশরাফুল ইসলাম অনিক ছাড়া্ও সহ-যুগ্ম আহবায়ক, আহ্বায়ক সদস্য এবং বিভিন্ন হল কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা।

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page

error: sorry please