7th, December, 2022, 3:30 am

লঞ্চ দুর্ঘটনা,২০ দফা সুপারিশ তদন্ত কমিটির

ঢাকা প্রতিনিধি : লঞ্চ দুর্ঘটনায় প্রাণহানির পেছনে ৯টি কারণ চিহ্নিত করে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা এড়াতে নৌ মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি ২০ দফা সুপারিশ করেছে । সদরঘাটের কাছে নৌযানের বার্থিং বন্ধ করা, ভয়েস ডিক্লারেশন বাধ্যতামূলক করা, খেয়াঘাট সরিয়ে নেওয়া, পুরনো ধাঁচের লঞ্চ তুলে দেওয়া, নৌযানের গতি সীমা নির্ধারণ, লঞ্চে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত টিকিট বিক্রি বন্ধ করা এবং শাস্তি বাড়িয়ে নৌ আইন যুগোপযোগী করার সুপারিশ করা হয়েছে।তবে ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় এমএল মর্নিং সান বুড়িগঙ্গায় ডুবে যাওয়ার ওই ঘটনা তদন্ত করে তদন্ত কমিটি কার কী দায় পেয়েছে, তা প্রকাশ করেননি নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।ওই প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর মঙ্গলবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, লঞ্চ দুর্ঘটনার জন্য কে কে দায়ী তা এখন প্রকাশ করছি না। তবে তদন্ত কমিটি ২০টি সুপারিশ দিয়েছে।গত ২৯ জুন মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি থেকে যাত্রী নিয়ে সদরঘাটের দিকে আসছিল ছোট আকারের লঞ্চ এমএল মর্নিং বার্ড। শ্যামবাজারের কাছে বুড়িগঙ্গা নদীতে ময়ূর-২ নামের আরেকটি বড় লঞ্চের ধাক্কায় সেটি ডুবে যায়। দুই দিনের তল্লাশি অভিযানে মোট ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।ওই ঘটনায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন) মো. রফিকুল ইসলাম খানকে আহ্বায়ক এবং বিআইডব্লিউটিএর পরিচালক (নৌ নিরাপত্তা) মো. রফিকুল ইসলামকে সদস্য সচিব করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়। অবহেলাজনিত মৃত্যু ঘটানোর অভিযোগ এনে ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক, মাস্টারসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করে নৌ পুলিশ।

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page

error: sorry please