আজ [bangla_date], [english_date]

রোগ ও পোকা মুক্ত আখ চাষের প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :  আগাম আখচাষ, রোগ ও পোকা মুক্ত গুণগত মানসম্পন্ন  আখ উৎপাদন, পরিষ্কার পরিছন্ন আখ মিলে সরবরাহ এবং আখের একর প্রতি ফলন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কলাকৌশল প্রয়োগ বিষয়ক এক আখচাষি প্রশিক্ষণ পাঁচবিবি উপজেলা সাবজোন কার্যালয়ে শনিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়। জয়পুরহাট চিনিকলের অধীন ১০টি সাব জোনে পর্যায়ক্রমে আড়াই শতাধিক আখচাষিকে ওই প্রশিক্ষণ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। পাঁচবিবি সাবজোনে জয়পুরহাট চিনিকলের মহাব্যবস্থাপক (কৃষি) কৃষিবিদ মো: তারেক ফরহাদের সভাপতিত্বে আয়োজিত আখচাষি প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আখলাছুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহাব্যবস্থাপক (অর্থ) মো: সেলিম মিয়া, উপ মহাব্যবস্থাপক ( সম্প্রসারণ কৃষি) মো: আব্দুর রউফ, ব্যবস্থাপক (ঋণ) হুমায়ন কবীর, ম্যানেজার ( ইক্ষু সংগ্রহ ও বীজ পরিদর্শন) মো: তানজিমুল ইসলাম ও সাবজোন প্রধান লিটন কুমার মন্ডল প্রমূখ।

দেশের বৃহত্তম চিনি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জয়পুরহাট চিনিকলে চলতি ২০২২-২০২৩ আখ রোপন মৌসুমে  ৬ হাজার একর জমিতে আখ রোপণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা  হলেও  ইতোমধ্যে  এক হাজার ২৪০ একর জমিতে আখ রোপণসম্পন্ন হয়েছে। চিনিকল সূত্র দিকদর্শনকে জানায়, চলতি ২০২২-২০২৩ আখ রোপণ মৌসুমের শুরু হয়েছে ১ সেপ্টেম্বর থেকে। লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য মিলের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময় ও আখ চাষে উদ্বুদ্ধকরণ কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। অন্যান্য ফসলের দামের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আখের মূল্যও বাড়িয়েছে সরকার। বর্তমানে মিলগেটে আখের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে পার মেট্রিক টন ৪ হাজার ৪৫০ টাকা এবং বাইরের ক্রয় কেন্দ্রের জন্য ৪ হাজার ৪৪০ টাকা। আখের মূল্য বাড়ানোর ফলে আখ চাষে কৃষকরা আগ্রহী হয়ে উঠছেন বলে জানান, জয়পুরহাট চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক  কৃষিবিদ মো: আখলাছুর রহমান।

চিনিকল সূত্র জানায়, আখ চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে  সরকারি সহায়তা হিসেবে গত আখ রোপণ মৌসুমে এক কোটি ৯০ লাখ টাকা ঋণ সুবিধা প্রদান করা হয়েছে। ঋণ প্রাপ্ত আখ চাষির সংখ্যা হচ্ছে ২ হাজার ৭শ জন। এর মধ্যে রয়েছে সার ও উন্নত মানের আখ বীজসহ  অন্যান্য উপকরণ। আখ মিলে সরবরাহ করার পর ঋণের টাকা পরিশোধ করতে হয় ফলে ঋণ পরিশোধ করার জন্য আখচাষিদের কোন বাড়তি চাপ থাকে না। গত ২০২১-২০২২ মাড়াই মৌসুমে ২১ হাজার ৪৪৯ মেট্রিক টন আখ মাড়াই করে এক হাজার ১৬২ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন করা হয়েছিল। ২০২২-২৩ সালের আখ মাড়াই মৌসুম শুরু হবে ৩০ ডিসেম্বর বলে জানান, জয়পুরহাট চিনিকলের ব্যবস্থপানা পরিচালক মো: আখলাছুর রহমান।

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page