15th, August, 2022, 2:58 am

মন্ত্রণালয় ও বিভাগ খোলা রাখার সুপারিশ

নিজেস্ব প্রতিনিধি : করোনাভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে সরকারি ছুটির দিনগুলোতে ১৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগ খোলা রাখার সুপারিশ করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। নিজ নিজ মন্ত্রণালয় ও বিভাগের গাড়িতেই যাতায়াত করতে হবে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের। তবে মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সংখ্যা প্রয়োজন অনুযায়ী কমবেশি হতে পারে। দেশের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় সাধারণ ছুটি ৫ মে পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিগগির প্রজ্ঞাপন জারি হবে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তা বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলা-সংশ্নিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো খোলা রাখার জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। কারণ, সংশ্নিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কর্মকর্তারা কর্মস্থলে উপস্থিত না থাকায় অনেক কাজে সমন্বয় করতে সমস্যা হচ্ছে। তারা জানান, করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে জেলা পর্যায়ে চলমান ত্রাণ কার্যক্রম সুসমন্বয়ের লক্ষ্যে ৬৪ জেলায় ৬৪ জন সচিব ও সিনিয়র সচিবকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সমন্বয়ের কাজে নিজ নিজ মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থার কর্মকর্তাদের সম্পৃক্ত করতে বলা হয়েছে। সমন্বয়ের মাধ্যমে প্রাপ্ত সমস্যা ও চ্যালেঞ্জ বা অন্যান্য বিষয় সরকারের সংশ্নিষ্ট মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থাকে লিখিতভাবে জানাবেন। তাই এসব কাজ ভালোভাবে নিশ্চিত করার জন্য সংশ্নিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মস্থলে উপস্থিত থাকা প্রয়োজন। এর আগে বিভাগ, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে দায়িত্ব পালনের লক্ষ্যে নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। তাদের সঙ্গেও নিয়মিত যোগাযোগ নিশ্চিত করার জন্য ১৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগ খোলা রাখা প্রয়োজন। তবে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কয়েকজন কর্মকর্তা পর্যায়ক্রমে অফিস করছেন। কর্মস্থল থেকে মাঠ প্রশাসনের সার্বিক বিষয়ে তারা সমন্বয় করছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ছুটি বাড়ানোর প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি হবে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, আগামী ৫ মে পর্যন্ত ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর আগে গত মঙ্গলবার দেশের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় সাধারণ ছুটির মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর সুপারিশ করে করোনাভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে গঠিত জাতীয় কমিটি। গত ২৬ মার্চ থেকে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে টানা ৩১ দিনের ছুটি চলছে। তারপরও পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় পঞ্চমবারের মতো ছুটি বাড়ছে।

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page