28th, June, 2022, 5:37 pm

এডিস নিয়ন্ত্রণে ১৫ জুন থেকে ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালত

নিজস্ব প্রতিনিধি : এডিস নিয়ন্ত্রণে আগামী ১৫ জুন থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) আওতাধীন ১০টি অঞ্চলে ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে। এছাড়াও ঢাকা দক্ষিণ সিটির আওতাধীন এলাকায় চিরুনি অভিযান পরিচালিত হবে। গতকাল মঙ্গলবার করপোরেশনের দ্বিতীয় পরিষদের চতুর্দশ বোর্ডসভায় ডিএসসিসি মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস এই তথ্য জানান। ডিএসসিসির প্রধান কার্যালয় নগর ভবনের মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মিলনায়তনে এ বোর্ডসভা অনুষ্ঠিত হয়। বোর্ডসভায় ডিএসসিসি মেয়র বলেন, আমাদের কাছে জনগণের প্রত্যাশা অনেক বেশি।

সেই প্রেক্ষিতেই আমরা মনে করি যে আমাদের আরও করণীয় রয়েছে এবং সেভাবেই এবারের কর্মপরিকল্পনা সাজিয়েছি। কর্মপরিকল্পনার আলোকে আগামী ১৫ জুন থেকেই আামদের কার্যক্রম পূর্ণাঙ্গভাবে শুরু করবো। আমাদের ১০টি অঞ্চলে ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের জন্য এরইমধ্যে নিবেদন করেছি। আশা করছি আমরা অচিরেই পেয়ে যাবো। সেই প্রেক্ষিতে আপনাদের নেতৃত্বে আমরা ১০টি অঞ্চলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবো। এছাড়াও আমাদের চিরুনি অভিযান পরিচালিত হবে। গতবারের তুলনায় এবার বেশি সময় ধরে চিরুনি অভিযান তদারকি করা হবে জানিয়ে মেয়র তাপস বলেন, গতবার আমরা এক মাস নিয়ন্ত্রণ কক্ষ পরিচালনা করেছিলাম। এবার সেটা আমরা দুই মাস ধরে পরিচালনা করবো।

এই নিয়ন্ত্রণ কক্ষের মাধ্যমে আমরা চিরুনি অভিযানগুলো তদারকি করবো। এ সময় ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে জনগণকে সহযোগিতার আহ্বান জানিয়ে ডিএসসিসি মেয়র বলেন, আপনারা যারা বাসাবাড়ির মালিক, স্থাপনার মালিক- এটা আপনাদেরই দায়িত্ব যে, আপনার আঙ্গিনায়, ছাদে, টবে, পরিত্যক্ত মালামালের মধ্যে যাতে কোনো পানি না জমে। বৃষ্টি হলে কোথাও পানি জমেছে কি না সেটা দেখবেন। পানি জমে থাকলে সেটা ফেলে দিন। তিনদিনের জন্য অপেক্ষা না করে নিয়মিত জমা পানি ফেলে দিন। ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২১ সালে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে তুলনামূলক সফলতার জন্য মেয়র বোর্ড সভায় কাউন্সিলরদের ধন্যবাদ জানান মেয়র তাপস।

একইসঙ্গে এবার আরও বেশি সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি। বোর্ডসভায় করপোরেশনের কাউন্সিলররাসহ দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর সিতওয়াত নাঈম, প্রধান প্রকৌশলী সালেহ আহম্মেদ, সচিব আকরামুজ্জামান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ফজলে শামসুল কবির, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

     More News Of This Category

follow us on facebook page